.

যৌতুক না পেয়ে বিয়ের আসরেই পাত্রীর বুকে লাথি মা'রল পাত্র, ভাঙচুর

সিলেট টাইমস ডেস্কঃ রণক্ষেত্র বিয়ে বাড়ি, পাত্রীকে বিয়ের আসরে মা'রধর! বরযাত্রীদের তা'ণ্ডবে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বিয়ের আসর। বিয়ের আসরে ভাঙচুরের পাশাপাশি খাবার প্যান্ডেলেও ভাঙচুর চালায় বরযাত্রীরা। পাত্রীর বুকেও লাথি মা'রার অ'ভিযোগ ওঠে খোদ পাত্রের বি'রুদ্ধে।এরপর গ্রামবাসীরা রুখে দাড়ালে পালিয়ে যায় বরযাত্রীরা। কিন্তু পাত্র সহ মোট আটজনকে আ'ট'কে রাখে কন্যা পক্ষ। ক্ষতিপূরণ না দিলে তাদের ছাড়া হবে না বলে জানিয়ে দেন।

রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ভা'রতের দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং থা'নার জয়রাম খালি গ্রামে। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ঐ এলাকায়।দীর্ঘক্ষণ উত্তে'জনার পর স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। গভীর রাতে মুক্ত হয়ে বাড়ি ফেরে পাত্রপক্ষ। কিন্তু কেন এই ঘটনা ঘটল বিয়ে বাড়িতে?জানা গিয়েছে, মাস ছয়েক আগে এর জয়রাম খালির বাসিন্দা উর্মিলার সঙ্গে রেজিস্ট্রি হয় সোনারপুর থা'নার বন হুগলির বাসিন্দা বীরু দাসের। ১লা ডিসেম্বর সামাজিক অনুষ্ঠান করে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

পাত্রীপক্ষের কাছে নগদ ২৫ হাজার টাকা দাবি করেছিল পাত্রপক্ষ। কিন্তু কোনও কারণে সেই টাকা দিতে পারেনি তারা। সেই সঙ্গে বিয়েবাড়ির খাওয়া দাওয়ার আয়োজন নিয়েও কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছিল। আর এতেই ক্ষোভে ফুটতে শুরু করে পাত্রপক্ষ। এই নিয়েই শুরু হয় অশান্তি।বিয়ের আসরে এহেন ঘটনায় ভেঙে পড়েছেন পাত্রীর পরিবারের সদস্যরা। পু'লিশের তরফে জানানো হয়েছে, এই ঘটনায় এখনও লিখিত অ'ভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

সূত্রঃবিডি ম'র্নিং

Back to top button