.

বন্ধু শোয়েবের জন্য বিমান ছেড়ে ট্রেনে উঠলেন সুধীর

সিলেট টাইমস ডেস্কঃ বাংলাদেশের টাইগার শোয়েব আর ভা'রতের সুধীর গৌতমকে চেনেন না এমন ক্রিকেটপ্রে'মী খুঁজে পাওয়া দুস্কর। ক্রিকেট না খেলেও তারা বিশ্বব্যাপী পরিচিত। বাংলাদেশের খেলা থাকলেই বাঘ সেজে গ্যালারিতে যান শোয়েব। আর ভা'রতের প্রতিটি ম্যাচে দেখা যায় বুকে টেন্ডুলকারের নাম লেখা সুধীর গৌতমকে। দুই দেশের দুই ক্রিকেটপ্রে'মীর মাঝে বন্ধুত্বও কিন্তু বেশ গাঢ়। এই মুহূর্তে টিম টাইগার ভা'রত সফরে থাকায় আবারও দেখা হয়েছে শোয়েব-সুধীরের।

নিজ নিজ দলকে সম'র্থন দিতে ক্লান্তিহীনভাবে গলা ফাটিয়ে যাচ্ছেন এই দুজন। ক্রিকেটারদের মতো তাদেরকেও ছুটতে হচ্ছে এক শহর থেকে অন্য শহরে। ভা'রত ও বাংলাদেশের মধ্যকার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি অনুষ্ঠিত হয়েছিল রাজকোটে। তৃতীয় ম্যাচ নাগপুরে, যা হাজারেরও বেশি কিলোমিটার দূরে। রাজকোটের ম্যাচ শেষে এই দীর্ঘ পথ যাওয়ার জন্য শোয়েব আলী বেছে নেন ট্রেন। এদিকে ভা'রতের সম'র্থক সুধীর গৌতম নাগপুর যাওয়ার কথা ছিল বিমানযোগে।

রাজকোট থেকে নাগপুরে ট্রেনে যেতে প্রায় এক দিন সময় লাগে। রেলপথে দুই শহরের দূরত্ব ১২০১ কিলোমিটার। আর বিমানে যেতেই লেগে যায় প্রায় ৫ ঘণ্টা। কিন্তু বন্ধু শোয়েব যখন ট্রেনে যাচ্ছেন, তখন সুধীর কী'ভাবে প্লেনে উঠবেন? দুই দেশের সম'র্থকেরা যতই ঝগড়া করুক না কেন, বয়স, ধ'র্ম, জাতি বা দলের ভেদাভেদ ভুলে দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধুত্বপূর্ণ স'ম্পর্ক শোয়েব ও সুধীরের। তাই বন্ধু শোয়েবকে সঙ্গ দিতে সুধীর বিমানের ফ্লাইট ছেড়ে একই ট্রেনে যাত্রা করেন। সোশ্যাল সাইটে সেই খবর জানিয়েছেন শোয়েব স্বয়ং।

Back to top button