মৌলভীবাজারে ৩০টি ভা'রতীয় মহিষ আ'ট'ক

সিলেট টাইমস ডেস্কঃমৌলভীবাজারের বড়লেখায় সীমান্তে গরু-মহিষ চো'রাচালান করতে গিয়ে প্রায়ই বিএসএফের গু'লিতে আ'হত নি'হত হয় চো'রাকারবারিরা। তবুও এই রুটে থামছে না চো'রাচালানের ঘটনা। এবার চো'রাই পথে আসা ৩০টি ভা'রতীয় অ'বৈধ মহিষ আ'ট'ক করেছে ৫২ বিজিবি।বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) সকালে উপজে'লার সদর ইউনিয়নের গঙ্গারজল এলাকা থেকে মহিষগুলো আ'ট'ক করা হয়। এ সময় পাচারকারীরা পালিয়ে যায়।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিজিবির জুড়ী কোম্পানি কমান্ডার গো'পন সূত্রের ভিত্তিতে খবর পান, বড়লেখা সীমান্তের মেইন পিলার ১৩৮২/৪-এস সংলগ্ন এলাকা দিয়ে একটি বড় ধরনের মহিষের চালান দেশের অভ্যন্তরে ঢুকেছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে জুড়ী কোম্পানীর টহল কমান্ডার সুবেদার মো. ই'মাম হোসেনের নেতৃত্বে জুড়ী বিওপির টহল দলসহ পাশ্বর্বতী বিওসিটিলা, লাতু ও বোবারথল বিওপির যৌথ ২৪ জন বিজিবি সদস্য বৃহস্পতিবার সকালে মেইন পিলার পিলার ১৩৮২/৪- এস হতে ৭ কিলোমিটার মিটার অভ্যন্তরে বড়লেখা উপজে'লার গঙ্গারজল নামক স্থানে অবস্থান নেন। এ সময় ভা'রতীয় মহিষের পাল নিয়ে চো'রাচালানীরা অগ্রসর হলে বিজিবি সদস্যরা তাদেরকে ধাওয়া করে ৩০টি মহিষ আ'ট'ক করেন। তবে চো'রাকারবারীরা পালিয়ে যায়।

বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল গাজী শহীদুল্লাহ বলেন, বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে মহিষ ফেলে চো'রাকারবারীরা পালিয়ে যায়। এ সময় বিজিবি ৩০টি ভা'রতীয় অ'বৈধ মহিষ আ'ট'ক করেছে, যার বাজার মূল্য ১৮ লাখ ২০ হাজার টাকা। মহিষগুলো বৃহস্পতিবার বিকেলে জুড়ী কাস্টমস অফিসে জমা দেয়া হয়েছে।

Back to top button
.